আত্মমর্যাদাশীল সিএসও-এনজিও সেক্টর: গ্রান্ড বারগেইন এবং স্থানীয়করণ বিষয়ে প্রচারণা বরিশাল বিভাগীয় কর্মশালা: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বিডিএম অডিটোরিয়াম, বরিশাল

0

গত ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তে বরিশালের বিডিএম অডিটোরিয়ামের ‘আত্মমর্যাদাশীল সিএসও-এনজিও সেক্টর: গ্রান্ড বারগেইন এবং স্থানীয়করণ বিষয়ে প্রচারণা’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রচারণা ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে উদ্বোধনী অধিবেশন শুরু হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার জনাব রাম চন্দ্র দাস। মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন এডাব-এর বিভাগীয় সমন্বয়কারী কাজী জাহাঙ্গীর কবির, এফএমবি’র বিভাগীয় সমন্বয়কারী নাসিরউদ্দিন আহমেদ, সিডিএফ এর হুমায়ূন কবির বালু, স্থানীয়করণ সম্পর্কিত বরিশাল বিভাগীয় আয়োজক কমটির সমন্বয়কারী জনাব আনোয়ার জাহিদ। পরিচিতি পর্ব সঞ্চালনা করেন কোস্ট ট্রাস্ট এর সহকারী পরিচালক মোস্তফা কামাল আকন্দ। কর্মশালাটি সঞ্চালনার দায়িত্ব পালন করেন কোস্ট ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল করিম চৌধুরীর।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই পরিচালক রেজাউল করিম চৌধুরীর উপস্থিত সবাইকে স্থানীয়করণ প্রচার অভিযানের পটভূমি, লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বর্ণনা করেন। তার বক্তব্যে তিনি ১৯৯৫ সালের ‘Monterrei Convention’ এর প্রেক্ষাপট আলোচনা করেন। এইড এফেকটিভনেস নিয়ে আলোচনায় ২০০৫ সালের পর থেকে রাষ্ট্র ও বাজারের সাথে সাথে উন্নয়ন অংশীদার হিসেবে সিভিল সোসাইটিকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। রাষ্ট্র ও বাজারের সাথে সাথে সিভিল সোসাইটির কাজ করার জন্য একটি প্লাটফর্ম গঠন করা হয়। এর নাম গ্লোবাল প্লাটফর্ম ফর ইফেকটিভ ডেভেলপমেন্ট কোঅপারেশন (GPEDC)। বাংলাদেশ, উগান্ডা ও জার্মানির অর্থমন্ত্রী এই প্লাটফর্মের কো-চেয়ার। এর মূল উদ্দেশ্য এইড এফেকটিভনেস থেকে ডেভেলপমেন্ট এফেকটিভনেসে রূপান্তর। ২০১৬ সালের ইস্তাম্বুলে গ্রান্ড বারগেন ঘোষণায় রাষ্ট্রের পাশাপাশি স্থানীয়করণকে গুরুত্ব দেয়া হয়। [বিস্তারিত প্রতিবেদন দেখতে এখানে ক্লিক করুন] [সেমিনার ভিডিও]
Photos

Share.

About Author

Leave A Reply